প্রথম শ্রেণীর পাঠ্যবইয়ে যুক্ত হচ্ছে প্রোগ্রামিং : মোস্তাফা জব্বার

0
1054

যে কোনো দেশের ভবিষ্যৎ দেশটির শিশুরা। তারাই প্রযুক্তির মাধ্যমে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাবে।

তাই শিগগিরই শিশুদের প্রোগ্রামিং শেখাতে প্রথম শ্রেণীর পাঠ্যবইয়ে প্রোগ্রামিং ভাষা যুক্ত করা হবে বলে জানিয়েছেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী মোস্তফা জব্বার।

প্রথম শ্রেণী থেকেই পাঠ্যবইয়ে প্রোগ্রামিং ভাষা যুক্ত করতে সরকার ইতোমধ্যে কাজও শুরু করেছে বলে জানান তিনি।

বৃহস্পতিবার ইউনাইটেড ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির (ইউআইইউ) ক্যাম্পাসে কলেজ রোবটিক্স প্রতিযোগিতার সমাপনী অনুষ্ঠানের বক্তব্যে এসব কথা জানান তিনি মন্ত্রী।

জব্বার বলেন, শিশুরা বড়দের তুলনায় দ্রুত প্রযুক্তির যে কোন বিষয় শিখতে পারে। তাই শিশুদের প্রযুক্তি সম্পর্কে আগেই জানানো উচিত। এতে উন্নত বিশ্বের শিশুদের মতই আমাদের দেশের শিশুরা প্রযুক্তির জ্ঞান পাবে। তারাই আগামীতে দেশকে প্রযুক্তি মাধ্যমে এগিয়ে নিয়ে যাবে। তাই তারা যেন প্রথম শ্রেণী থেকে প্রোগ্রামিং শিখতে পারে সেই লক্ষ্য কাজ করছে সরকার। শিগগিরই প্রথম শ্রেণীর পাঠ্যবইয়ে প্রোগ্রামিং ভাষা যুক্ত করা হবে।

প্রযুক্তির অনেক ভালো দিক থাকলেও কিছু খারাপ দিক রয়েছে। অনেক মানুষ প্রযুক্তিকে খারাপ কাজে ব্যবহার করে থাকে। অনলাইনে হয়রানির শিকার হয়ে থাকে অনেকেই। শিক্ষার্থীদের এই ব্যাপারের পরামর্শ দিতে গিয়ে মোস্তাফা জব্বার বলেন, ইন্টারনেট ব্যবহারে শিক্ষার্থীদের সর্তক থাকবে। প্রযুক্তি এই মাধ্যমটিকে ভালো কাজে ব্যবহার করতে হবে।

তিনি আরো বলেন, বর্তমানে ডিজিটাল নিরাপত্তার কোন আইন নেই। ফলে কেউ অনলাইনে হয়রানির শিকার হলে সঠিক বিচার পান না। এই সমস্যা সমাধানে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন নিয়ে কাজ চলছে। আগামী এপ্রিল মাসে কাজটি শেষ হবে। তখন অনলাইনে কেউ হয়রানির শিকার হলে বিচার মিলবে সহজেই।

কলেজ শিক্ষার্থীদের জন্য বুধবার থেকে শুরু হওয়া দুই দিনব্যাপী রোবটিক্স প্রতিযোগিতাটি শেষ হয় বৃহস্পতিবার। সমাপনী অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন ভেনচুরাস লিমিটেডের সিইও ইউরিকো উয়েদা, বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (বিডা)-এর নির্বাহী চেয়ারম্যান কাজী এম আমিনুল ইসলামসহ আরো অনেকে।

এই প্রতিযোগিতায় জয়ী হয় নটরডেম কলেজ। বাংলাদেশ বিনিয়োগ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (বিডা), জাপান দূতাবাস, জাপান এক্সটারনাল ট্রেড অরগানাইজেশন (জেইটিআরও) ও তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের সহযোগিতায় জাপানের এডুকেশন টেকনোলোজি কোম্পানি ভেনচুরাস প্রতিযোগিতাটির আয়োজন করে।